আর্জেন্টিনার জার্সি তুলে রাখার দিনক্ষণ জানালেন ডি মারিয়া

আজ ২০২৬ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের প্রথম ম্যাচেও মাঠে ছিলেন ডি মারিয়া। ৮৯ মিনিটে লিওনেল মেসি মাঠ ছাড়ার সময় অধিনায়কত্বের আর্মব্যান্ডটা ডি মারিয়ার হাতেই পরিয়ে দিয়েছিলেন। ২০২৬ বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব খেললেও ডি মারিয়া ২০২৬ বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্ন দেখছেন না। ডি মারিয়ার বন্ধু আর্জেন্টাইন অধিনায়ক লিওনেল মেসিও ২০২৬ বিশ্বকাপে খেলবেন কি না, তা নিয়েও আছে ধোঁয়াশা।

২০০৮ সালে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আর্জেন্টিনার জার্সিতে অভিষেক হয় ডি মারিয়ার। এরপর আর্জেন্টিনার হয়ে খেলেছেন ১৩৩ ম্যাচ। গোল করেছেন ২৯টি। করিয়েছেন ২৭টি। তবে এসবের জন্য নয়, আর্জেন্টাইনরা ডি মারিয়াকে মনে রাখবে গুরুত্বপূর্ণ সময়ে তাঁর দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের জন্য, আর্জেন্টিনাকে শিরোপা এনে দেওয়ার জন্য।

২০০৮ অলিম্পিকে ডি মারিয়ার গোলেই স্বর্ণপদক জিতেছিল আর্জেন্টিনা। এক যুগের বেশি সময় পর তাঁর গোলেই মেসিরা পান কোপা আমেরিকার শিরোপাও। এমনকি গত বছরের জুনে ইউরো চ্যাম্পিয়ন ইতালির বিপক্ষে ফিনালিসিমায়ও গোল করেছিলেন।

আর সর্বশেষ কাতার বিশ্বকাপের ফাইনালেও গোল করেছিলেন এই আর্জেন্টাইন উইঙ্গার। এমন একজনকে কি সহজে ভুলতে পারবেন আর্জেন্টাইনরা? বোধ হয় না!