অধিনায়কত্ব ছাড়ার আসল কারণ জানালেন তামিম ইকবাল

‘অভিমানের’ অবসর ভেঙে ক্রিকেটে ফিরলেও তামিম ইকবাল ছেড়েছেন অধিনায়কত্বের পদ। যে কারণে ওয়ানডে দলকে সামলানোর গুরুভার গিয়ে পড়েছে সাকিব আল হাসানের ওপর। শুরুতে অধিনায়কত্ব ছাড়ার ইস্যুতে নিজের ইনজুরিকে দায় দিলেও অবশেষে মুখ খুলতে শুরু করেছেন বাঁহাতি এই ওপেনার।

গুঞ্জন ছিল সতীর্থ ও কোচের সঙ্গে তামিমের চলছে শীতল সম্পর্ক। আর সে কারণেই অধিনায়কত্ব ছেড়েছেন তামিম এমন গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছিল ক্রিকেট পাড়ায়। শেষ পর্যন্ত হলোও সেটি।

ড্রেসিংরুমের পরিস্থিতি স্বাভাবিক না থাকায় অধিনায়কত্ব থেকে সরে এসেছেন বলে ক্রিকেটভিত্তিক একটি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন তামিম।

তামিম বলেন, ‘যদি সবকিছু স্বাভাবিক থাকতো, সবকিছু ঠিক থাকতো তাহলে হয়তোবা আমি (অধিনায়কত্ব) চালিয়ে যেতাম। তবে আমি এখনও পর্যন্ত নিজের ওপরই দায় নিচ্ছি এটার জন্য। ভেতরে কি আলোচনা হয়েছে সেটা আমি মনে করি, আমাদের ভেতরেই থাকা উচিত। যদিও দুর্ভাগ্যবশত অনেক কিছুই নিউজে চলে আসে।’

তিনি আরো বলেন, ‘যদি আমি কারো সাথে খুশি না হই বা কেউ আমার সাথে খুশি না হয় তাহলে এত বড় ইভেন্টে (বিশ্বকাপ) আপনি যদি শুধু পজিশনটাকে ধরে রাখেন – ভালভাবে যোগাযোগ করতে পারছেন না বা একটি অস্বস্তি থেকেই যাচ্ছে, তবে এটা তো দলের মধ্যে একটা প্রভাব ফেলবেই। আমি সেই স্বার্থপর মানুষ হতে চাইনি। আমার জন্য, যদি ৫ শতাংশও দলকে প্রভাবিত করে, আমি তা চাই না।’

তামিমের অধীনে ওয়ানডে দল প্রত্যাশার চেয়েও ভালো খেলেছিল সেটি বলার অপেক্ষা রাখে না। সেরা চারে থাকার লক্ষ্য নিয়ে ওয়ানডে সুপার লিগ শুরু করে লিগ শেষ করেছিল বাংলাদেশ তৃতীয় হয়ে। যে কারণে আসন্ন বিশ্বকাপে ভালো কিছু করবে বাংলাদেশ, সেই স্বপ্নজাল বুনতে শুরু করেছিল টাইগার ক্রিকেটভক্তরা।

স্বপ্নটা ছিল তামিমেরও। সবকিছু ঠিক থাকলে দেশসেরা এই ওপেনারের অধীনেই বিশ্বকাপে খেলত বাংলাদেশ। কিন্তু শেষপর্যন্ত সেটি আর হয়নি। এশিয়া কাপের আগেই অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিয়েছেন বাঁহাতি এই ক্রিকেটার।